পূর্ণিমাকে মা’রলেন তার স্বামী, ফাঁ’স হলো সেই ভিডিও

সারা বিশ্ব কাঁ’পছে করো’নায়। যার মা’রাত্মক প্র’ভাব পড়ল বাংলাদেশেও। এরিমধ্যে আ’ক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার ছাড়িয়েছে। দিনের পর দিন আরও ভ’য়ংকর হচ্ছে প্রা’ণঘাতী এই ভাই’রাস।

এমন সংক’টে ঘরব’ন্দি মানুষ। জ’রুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে যাওয়াও পুরোপুরি নি’ষেধ। তাতে যারা নিম্ন আয়ের, তাদের বাড়ছে হ’তাশা। গত কয়েক দিনের পরিসংখ্যান বলছে এই করো’নার কারণে পারিবারিক কলহও বেড়ে চলছে। অভাব অনটনের জন্য অনেক স্বামী আবার তার স্ত্রী’র গায়েও হাত তুলছেন।

যদিও এমন ঘ’টনা বাংলাদেশ নতুন নয়। তবে এই সংক’টে সেটা বাড়ছে যেন পাল্লা দিয়ে। বাংলাদেশের জনপ্রিয় অ’ভিনেত্রী পূর্ণিমা বোধ হয় তারই একটা উদাহ’রণ টানলেন। নিজে’র ইনস্টাগ্রামে দেখালেন চ’মৎকার অ’ভিনয় করে। কিভাবে ঘরে ঘরে নির্যাতিত হচ্ছেন নারীরা। হয়তো তারই একটা নমুনা দেখালেন তিনি।

ভিডিওতে দেখা যায় পূর্ণিমা অঝোরে কাঁ’দছেন। তার চোখে মুখে রাজ্যের হ’তাশা। এসব দেখে কেউ একজন তার কাছে জানতে চান এভাবে, কি গো তোর জামাই তোরে এমনে মা’রলে কেরে? উত্তরে পূর্ণিমা বলেন, ‘কইছি না আমা’র জামাই দুইটা সিম ব্যবহার করে। আমি একটা সিম নাম্বার সেভ করছিলাম স্বামী ওয়ান, আরেকটা সিম নাম্বার সেভ করছিলাম স্বামী টু দিয়ে।

শালা না বুইঝা আমা’রে এই মাইরডা দিসি।’ এরপরই ভিডিওটি ছ’ড়িয়ে প’ড়ে নেট দুনিয়ায়। বিশেষ করে ফেসবুকে ভাই’রাল হয়ে যায়। আর এ নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে শুরু হয় নানা যু’ক্তি ত’র্ক। কেউ তার চোখে দেখা কোনো একটা ঘ’টনার কথা বর্ণনা করছেন। কেউ আবার বলছেন ভিন্ন কথা।পূর্ণিমার ভিডিওটি দেখেতে >>>এখানে<<< ক্লি’ক করু’ন।  সূত্র- ডেইলি বাংলাদেশ

error: Content is protected !!