বাংলাদেশী তরুনীকে বিয়ে করে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করলেন ইতালীয় পুলিশ

সুমাইয়ারার পৈতৃক বাড়ি হচ্ছে মাগুরা জে’লায় কিন্তু বড় হয়েছেন বাংলাদেশে ঢাকার মালিবাগে। তার বয়স ২৪ বছর এবং সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের সন্তান।

দেশে এস এস সি এবং এইচ এস সি শেষ করে ২০১৫ সালে সুমাইয়ারা তার বড়ভাইসহ বাংলাদেশ থেকে আসেন ইতালির রোম শহরে লেখাপড়ার জন্য।তারভাই রোমা’র তোরবেরগাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে,সুমাইয়ারা তরিনো বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন এবং বর্তমানে অধ্যয়নরত আছেন।তার পরিচয় হয় দমিনিকোয়া সাথে এবং শখ্যতা গড়ে উঠে।

অবশেষে দমিনিকো তাকে বিয়ের কথা বললে সুমাইরা বলেন একজন বিধ’র্মীকে সে বিয়ে ক’রতে পারবেনা।যদি বিয়ে ক’রতে চায় তবে তাকে ইসলাম ধ’র্ম গ্রহন কর‍তে হবে তাহলে সুমাইয়ার অভিভাবক কে রাজি করাতে পারবেন অন্যথায় অসম্ভব! অবশেষে দমিনিকো তামবুররিনো বিয়ের ৬ মাস আগেই নিজে’র ধ’র্ম পরিবর্তন ক’রতে আ’ইনগতভাবে যা যা ক’রতে হয় সেসব করে ইসলাম ধ’র্ম গ্রহণ করেন,

এবং এ বছরের শুরুতে বাংলাদেশে গিয়ে গত মা’র্চ মাসের ৭ তারিখ মুসলিম শরিয়ত অনুযায়ী বিবাহ ব’ন্ধনে আব’দ্ধ হন। তারা বাংলাদেশে ৩ মাস বসবাস করেন এবং দেশে থাকাকালীন সময়ে ইসলাম ধ’র্মীয় সকল রীতিনীতি মেনে চলেন।দোমিনিকো তাম্বুররিনো পেশায় একজন ক্যারাবিনিয়ারির মা’রেশাল্লো পদে আছেন এবং তার ক’র্মস্থল আল্পসের পাদদেশে অবস্থিত সুন্দর শহর তরিনোতে।

আমাদের সকলেরই অন্যের ব্যাক্তিগত বিষয় নিয়ে ভালোভাবে না জে’নে মন্তব্য করা উচিত না।সুমাইয়ারার বাবা মা যদি সবকিছুই মেনে নেন তাহলে আমা’র আপনার বাজে মন্তব্য করার প্রয়োজন কি? পারলে নবদম্পতির জন্য দোয়া করুন যেন ইসলামের সঠিক পথে থাকতে পারেন। ভিত্তিমুলক তথ্য প্রদানেঃ Md Sohel Meazi, অনলাইন

error: Content is protected !!